একটি হাঁসের খামারের দৈনিক কাজের রুটিন

খামার ব্যবস্থাপনা প্রাণিসম্পদ হাঁস পালন

দৈনিক কার্যাবলিঃ
যে কোনাে ধরনের খামারই হােক না কেন তার ব্যবস্থাপনা একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। প্রকৃতপক্ষে খামার ব্যবস্থাপনার উপরই খামারের লাভ-লােকসান এমনকি খামারের ভবিষ্যৎ সম্প্রসারণ নির্ভর করে।

ক) সকাল ৭-৯ টাঃ

  • জীবাণুমুক্ত অবস্থায় শেডে প্রবেশ করতে হবে এবং হাঁস-মুরগির সার্বিক অবস্থা ও আচরণ পরীক্ষা করতে হবে।
  • মৃত বাচ্চা/বাড়ন্ত বাচ্চামুিরগি থাকলে তৎক্ষণাৎ অপসারণ করতে হবে।
  • পানির পাত্র খাবার পাত্র পরিষ্কার করতে হবে।
  • পাত্রে খাবার ও পানি না থাকলে তা পরিষ্কার করে খাদ্য ও পানি সরবরাহ করতে হবে।
  • লিটারে অবস্থা পরীক্ষা করতে হবে ও প্রয়ােজন হলে পরিচর্যা করতে হবে।
  • সকাল ৯.০০ ঘটিকায় ডিম সংগ্রহ করতে হবে।
  • কিছুক্ষণ দাঁড়িয়ে হাঁসের আচরণ পরীক্ষা করতে হবে।
  • হাঁসের খামারে হাঁসগুলােকে সকাল ৯.৩০ ঘটিকায় ছাড়তে হবে কারণ হাঁস সকাল বেলায় ডিম পাড়ে।
  • অসুস্থ হাঁস থাকলে আইসোেলশন শেডে নিয়ে চিকিৎসার ব্যবস্থা করতে হবে।

খ) সকাল ১১-১২টাঃ

  • খাদ্য নাড়াচাড়া করে দিতে হবে।
  • পানি গরম ও ময়লা হলে পরিবর্তন করে পরিষ্কার ও ঠান্ডা পানি দিতে হবে।

গ) বিকাল ৪-৫টাঃ

  • পাত্রে খাদ্য পানি না থাকলে তা সরবরাহ করতে হবে।
  • ডিম সংগ্রহ করতে হবে ।
  • ডিম পাড়ার বাসা/বাক্সের দরজা বন্ধ করতে হবে ।
  • আচরণ পরীক্ষা করতে হবে।
  • পানির পাত্র অথবা খাদ্যের পাত্র অপরিষ্কার দেখলে পরিষ্কার করার ব্যবস্থা নিতে হবে ।

Tagged

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *