দ্রুত গরু মোটাতাজাকরার সহজ উপায়

খামারের গরু সুস্থ আছে কিনা বোঝার ৮ টি উপায়

খামার ব্যবস্থাপনা গরু মোটাতাজাকরণ ডেইরি ফার্মিং প্রাণিসম্পদ

আমরা যারা গরু পালি বা গরুর খামার পরিচালনা করি তাদের একটা ব্যাপারে বিশেষ জ্ঞানের প্রয়োজন, বিশেষ করে নতুন খামারীদের। সেটা হল খামারে থাকা আপনার গরু বা গরুগুলির সুস্থতা যাচাই। এটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটা বিষয়! সকালবেলা আপনি যখন গরুর গোয়ালঘর বা খামারে প্রবেশ করবেন তখন কিছু বিশেষ ব্যাপার গুলি লক্ষ্য করলেই আপনি প্রাথমিক ভাবে বুঝতে আপনার খামারের গরু বা গরুগুলির সুস্থতার সম্বন্ধে! নিচে সেই বিশেষ ব্যাপার গুলি আমি চিত্র সহকারে ক্রমানুসারে উল্লেখ করছি।


১। খামারে পা দিয়েই আপনি আগে দেখবেন কোন গরুর গোবর কেমন। সুস্থ গরুর গোবর বেশী শক্তও হবে না, আবার একেবারে নরমও হবে এবং তাতে বিশ্রী দুর্গন্ধও থাকবে না! আবার যাদের কাছে গরুর গোবরের গন্ধ অসহ্য লাগে তাদের কাছে কিন্তু গোবরের স্বাভাবিক গন্ধও খারাপ লাগবে,তাদের গরু পালার দরকার নাই।


২। এর যে ব্যাপারটি লক্ষ্য করবেন সেটা হচ্ছে গরুর ক্ষুর বা ক্ষুরা। ক্ষুরার চারপাশে যে আবরণ থাকে সেটা মসৃণ কিনা, ক্ষুরার আগা স্বাভাবিক ভাবে আছে কিনা,ক্ষুরার চারপাশের আবরণের উপর হাল্কা অথচ স্পষ্ট রেখা আছে কিনা। এই রেখা গুলির স্তর বৃদ্ধি কিন্তু গরুর দৈহিক বৃদ্ধি নির্দেশ করে। ক্ষুরার দুই স্তরের সংযোগ স্থল ঘা মুক্ত কিনা সেটাও দেখে নিতে হবে।


৩। এবার আমরা লক্ষ্য করবো গরুর চোখের দিকে। চোখ যদি উজ্জ্বল, ছলছলে এবং পিচুটি মুক্ত থাকে তাহলে সেটা গরুর সুস্থতার ইংগিত করে।

দ্রুত গরু মোটাতাজাকরার সহজ উপায়
খামারের গরু সুস্থ আছে কিনা বোঝার ৮ টি উপায়


৪। এরপর আমরা খেয়াল করবো গরুর কানের দিকে। গরু তার কান এদিক ওদিক নাড়াচাড়া করে বার বার কানের ছিদ্রপথ
যদি সম্মুখ দিকে রাখার চেষ্টা করে তাহলে সেটা সুস্থ গরুর লক্ষণ।


৫। এবার লক্ষ্য করতে গরুর লেজের দিকে। একই তালে লেজ নাড়াচাড়া করা মানে গরুর গায়ের তাপমাত্রা স্বাভাবিক এবং গরুর ইদ্রিয় গুলি সজাগ! মানে গরু সুস্থ!


৬। এবার চোখ দিবো আমরা গরুর নাকের দিকে। গরুর নাকে হাল্কা ঘাম জমে থাকা গরুর ভালো স্বাস্থ্যের লক্ষণ।


৭। এবার নজড় দিবো গরুর গায়ের লোমের দিকে। সুস্থ গরুর গায়ের লোম হবে চকচকে এবং মসৃণ।


৮। এর পর যেই ব্যাপারটা আমরা আমলে আনবো সেটা হচ্ছে গরু জাবর কাটছে কিনা। এই জাবরকাটাটাই হচ্ছে সুস্থ গরুর অন্যতম লক্ষণ।


উপরের উল্লেখিত ব্যাপারগুলি যদি আমাদের গরুগুলির মধ্যে দেখা যায় তাহলে বুঝতে হবে সে গুলি সুস্থ আছে। আর দেখা না গেলে ওই গরুকে নিবিড় ভাবে পর্যবেক্ষণ করতে হবে এবং কারণ উৎঘাটন করে সেই অনুযায়ী ব্যাবস্থা নিতে হবে।

লেখার উৎসঃ মুক্তি মাহমুদ

Tagged

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *