গরুর গলাফুলা রোগের ভ্যাকসিনেশন তথ্য

গরুর ভ্যাকসিন শিডিউল প্রাণিসম্পদ ভ্যাকসিন নিয়ে যত কথা ভ্যাকসিনেশন রোগ ও প্রতিরোধ

গলাফুলা একটি তীব্র প্রকৃতির পাশ্চুরেলোসিস ধরনের রোগ। যাহা গরু এবং মহিষকে আক্রান্ত করে। এটি একটি ব্যাকটেরিয়া জনিত রোগ যাহা Pasteurella multocida দিয়ে হয়। এ রোগে মৃত্যুর হার খুবই বেশি। বর্ষাকালে গলাফুলা রোগ বেশি দেখা যায়। পশুর শরীরে স্বাভাবিক অবস্থায় এ রোগের জীবাণু বিদ্যমান থাকে। কোন কারণে যদি পশু পীড়নের সম্মুখীন হয় যেমন- ঠান্ডা, অধিক গরম, ভ্রমণজনিত দুর্বলতা তখনই এ রোগ বেশি দেখা দেয়। সেপ্টিসেমিয়া, উচ্চ তাপমাত্রা, গ্রীবার সম্মুখভাগে এডিমা স্ফীতি ও উচ্চ মৃত্যুর হার এ রোগের প্রধান বৈশিষ্ট্য।

মাষ্টার সীড : লোকাল ষ্ট্রেইন।
অরিজিন : প্রাণিসম্পদ গবেষণা প্রতিষ্ঠান, মহাখালী, ঢাকা।

ব্যবহার বিধিঃ

  1. অয়েল এ্যাডজুভেন্ট টিকা সাধারণত: প্রাপ্ত বয়স্ক (২য় বৎসরের উপরে) গবাদিপশুকে ২ এমএল মাত্রায় ও ছাগল ভেড়ায় ১ এম এল মাত্রায় প্রয়োগ করতে হয়। এনজুটিক এলাকায় ৬ মাস বা তদুর্ধ বয়সী বাছুরে প্রাপ্ত বয়স্ক গরুর অর্ধেক মাত্রায় টিকা দিতে হয়। এ্যালাম অধঃপতিত টিকা গবাদিপশুতে ৫ এম এল মাত্রায় ও ছাগল ভেড়ায় ২ এম এল মাত্রায় প্রয়োগ করতে হয়। অয়েল এ্যাডজুভেটটিক চামড়ার নিচে ও এ্যালাম ২ এমএল মাত্রায় প্রয়োগ করতে হয়। যেহেতু দু’ধরনের টিকাই মাঠ পর্যায়ে ব্যবহৃত হয়, তাই বিষয়টির দিকে সতর্ক দৃষ্টি রাখতে হবে। কারণ, অয়েল এ্যাডজুভেন্ট টিকা তেল থেকে প্রস্ত্তত বিধায় ভুলক্রমে এই টিকা মাংসে প্রদান করলে মাংসে প্রদাহ সৃষ্টি হয়ে মাংসে ক্ষতি হয় এবং সমস্যার দৃষ্টি হতে পারে।
  2. টিকা প্রদানের ২-৩ সপ্তাহ পর রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা জন্মাতে শরু করে। রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা টিকা দানের ১ বৎসর কাল পর্যন্ত বজায় থাকে। এই টিকা মৃত জীবাণু দ্বারা প্র্সতুত বিধায় এই টিকার মাধ্যমে রোগ বিসত্মারের কোন সম্ভাবনা নাই।
  3. টিকা প্রয়োগের স্থান ২/৩ দিন পর্যন্ত ফুলা থাকতে পারে। ত্রম্নটিপূর্ণ ইনজেকশনের কারণে এই ফুলা বেশ কিছু দিন থাকতে পারে। ক্ষেত্র বিশেষে (শতকরা ১ ভাগ পশুতে) এনাফাইলেকটিক (Anaphylactic) শক দেখা দিতে পারে। কোন এলাকায় বা খামারে টিকা প্রদানের পূর্বে মুষ্টিমেয় গবাদিপশুকে টিকা প্রদানের পর ২৫-৩০ মিঃ অপক্ষা করে কোন বিরূপ প্রতিক্রিয়া দেয়া যায় কিনা তা পর্যবেক্ষণ করা শ্রেয়। যদি কোন প্রতিক্রিয়া দেখা যায়, তবে উক্ত বোতলের টিকা পুনরায় ব্যবহার করা উচিত নয়। টিকা প্রদানের বিরূপ প্রতিক্রিয়া দেখা দিলে এন্টিএলার্জিক ও প্রয়োজনে এন্টিবায়োটিক ব্যবহারে সুফল পাওয়া যায়।
  4. অয়েল এ্যাডজুভেন্ট টিকা বেশ ঘন হওয়ায় এই টিকা প্রদানে মোটা বোরের নিডিল ব্যবহার সুবিধাজনক।

সরবরাহ :
(ক) অয়েল এ্যাডজুভেন্ট টিকাঃ প্রতি ভায়ালে গরু/মহিষের জন্য ৫০ মাত্রা টিকা এবং ছাগল/ভেড়া/ বাছুরের জন্য ১০০ মাত্রা টিকা।
(খ) এ্যালাম অধঃপতিত টিকাঃ প্রতি ভায়ালে গরু/মহিষের জন্য ২০ মাত্রা টিকা এবং ছাগল/ভেড়া/ বাছুরের জন্য ৫০ মাত্রা টিকা।

মূল্য : (ক) অয়েল এ্যাডজুভেট টিকাঃ ৩০ টাকা।
            (খ) এ্যালাম অধঃপতিত টিকাঃ ৩০ টাকা।

Facebook Comments
Tagged

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *