ছাগলের ভ্যাকসিন তালিকা | ছাগলের পিপিআর ভ্যাকসিন

গাড়ল পালন ছাগল পালন ছাগলের ভ্যাকসিন শিডিউল প্রাণিসম্পদ ভ্যাকসিন নিয়ে যত কথা ভ্যাকসিনেশন রোগ ও প্রতিরোধ

অনেকে জানতে চান ছাগলকে কি কি ভ্যাকসিন বা টিকা দিতে হবে? অথবা ছাগলের ভ্যাকসিন তালিকা কেমন হওয়া উচিত? ছাগলের রোগ প্রতিরোধ করার জন্য রয়েছে ছাগলের টিকা তালিকা। ছাগলের বিভিন্ন রোগ প্রতিরোধ করার জন্য ভ্যাকসিন অতি গুরুত্বপূর্ণ। ছাগলের কিছু কিছু রোগ আছে যা শুধু ভ্যাকসিন প্রয়োগের মাধ্যমেই প্রতিরোধ করা যায়। আবার এ রোগগুলি যদি দেখা দেয় তাহলে অনেক ক্ষতির সম্মুখীন হতে হয় এবং অনেক ছাগল মারা যায়। ছাগলের কিছু কমন রোগের জন্য ছাগলের ভ্যাকসিন তালিকা নিচে দেওয়া হল:

A herd of Goat Playing…..

ছাগলের রোগের নাম, ভ্যাকসিনের নাম, ভ্যাকসিনের ডোজ, ভ্যাকসিন দেয়ার রুট, বুস্টার ডোজের সময়, এবং ভ্যাকসিন প্রদানে কিছু লক্ষণীয় সতর্কতা সহ ছাগলের ভ্যাকসিন তালিকা নিচের চার্টে তুলে ধরা হলঃ

ছাগলের টিকা তালিকা/ছাগলের ভ্যাকসিন তালিকা

রোগের নামটিকার নামডোজ ও প্রয়োগ পদ্ধতিবুস্টার ডোজলক্ষণীয়
পিপিআর রোগপিপিআর টিকা১ মিলি বা সিসি করে চামড়ার নিচে ইনজেকশন১ বছর পরপর৪ মাস বয়সে এ টিকা দিতে হয়। তবে, ছাগলের বাচ্চার বয়স ২ মাস হলেই এ টীকা দেওয়া যাবে। এক্ষেত্রে ৬ মাস পর বুস্টার ডোজ দিতে হবে। এর পর থেকে বছরে এক বার করে দিতে হবে।
এ্যানথাক্স বা তড়কাএ্যানথাক্স বা তড়কা টিকা০.৫ মিলি বা সিসি করে চামড়ার নিচে ইনজেকশন১ বছর পরপরছাগলের বয়স ২ মাস বয়সের বেশি হলে দেওয়া যাবে এবং প্যাগনেন্ট ছাগলকে দেয়া যাবে না।
ক্ষুরা রোগ বা এফ.এম.ডিক্ষুরা রোগ বা এফ.এম.ডিমনোভ্যলেন্ট: ১ মিলি বা সিসি
বাইভ্যালেন্ট: ২ মিলি বা সিসি
ট্রাইভ্যালেন্ট: ৩ মিলি বা সিসি করে চামড়ার নিচে ইনজেকশন
৬ মাস পরপর৪ মাস বয়স থেকে শুরু করে যেকোন বয়সের ছাগলকে এমনকি গর্ভবতী ছাগলকে দেওয়া যাবে।
গোট পক্স বা ছাগলের বসন্ত রোগগোট পক্স ভ্যাকসিন১ মিলি বা সিসি করে চামড়ার নিচে ইনজেকশন১ বছর পরপর৬ মাস বয়স হলেই ছাগলকে এ টিকা দেয়া যাবে।
ছাগলের ভ্যাকসিন তালিকা

১। ছাগলের পিপিআর ভ্যাকসিন

  • টিকার নামঃ পিপিআর টিকা
  • রোগের নামঃ পিপিআর রোগ
  • ভ্যাকসিন দেয়ার স্থানঃ  চামড়ার নিচে
  • টিকার মাত্রাঃ  ১ সিসি
  • ইমিউনিটিঃ  ৬ মাস


সর্তকতাঃ  ছাগলের বাচ্চার বয়স ২ মাস হলেই এ টীকা দেওয়া যাবে। ৬ মাস পর বুস্টার ডোজ দিতে হবে।এর পর থেকে বছরে এক বার করে দিতে হবে।

২। ছাগলের তড়কা রোগের ভ্যাকসিন

  • ভ্যাকসিনের নামঃ এ্যানথাক্স বা তড়কা টিকা
  • ছাগলের রোগের নামঃ তড়কা
  • টিকা দেয়ার স্থানঃ ঘারের চামড়ার নিচে
  • ভ্যাকসিনের মাত্রাঃ ছাগল – ০.৫ সিসি
  • ইমিউনিটিঃ ১ বৎসর। প্রথম বার ভ্যাকসিন দেবার পর বছরে ১ বার করে দিতে হবে।


সর্তকতাঃ ছাগলের বয়স ২ মাস বয়সের বেশি হলে দেওয়া যাবে এবং প্যাগনেন্ট ছাগলকে দিবেন না।

৩। ছাগলের ক্ষুরা রোগের ভ্যাকসিন

  • রোগের নামঃ ক্ষুরা রোগ বা এফ.এম.ডি
  • টিকার নামঃ ক্ষুরা রোগ টিকা
  • ভ্যাকসিন প্রদানের স্থানঃ চামড়ার নিচে
  • টিকার মাত্রাঃ
    মনোভ্যলেন্টঃ ১ সিসি
    বাইভ্যালেন্টঃ ২ সিসি
    ট্রাইভ্যালেন্টঃ ৩ সিসি
  • ইমিউনিটিঃ ৬ মাস

সর্তকতাঃ ৪ মাস বয়স থেকে শুরু করে যেকোন বয়সের ছাগলকে এমনকি গর্ভবতী ছাগলকে দেওয়া যাবে।

৪। ছাগলের গোট পক্স ভ্যাকসিন

  • ভ্যাকসিনের নামঃ গোট পক্স ভ্যাকসিন
  • ছাগলের রোগের নামঃ গোট পক্স বা ছাগলের বসন্ত রোগ
  • টিকা দেয়ার স্থানঃ চামড়ার নিচে
  • ভ্যাকসিনের মাত্রাঃ ছাগল – ১ সিসি
  • ইমিউনিটিঃ ১ বৎসর। প্রথম বার ভ্যাকসিন দেবার পর বছরে ১ বার করে দিতে হবে।

সর্তকতাঃ  ৬ মাস বয়স হলেই ছাগলকে এ টিকা দেয়া যাবে। প্রথম বার ভ্যাকসিন দেবার পর বছরে ১ বার করে দিতে হবে।


★★ছাগলের পিপি.আর এবং এফ.এম.ডি বা ক্ষুরা রোগ সবচেয়ে বেশি হয়

ছাগল পালন সম্পর্কে আরো জানতে এবং ফার্মিং বিষয়ক নিয়মিত পরামর্শ পেতে আমার ইউটিউব চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করে রাখুন

<<<সাবস্ক্রাইব করতে এখানে ক্লিক করুন >>>

Tagged

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *