ডেইরি খামারীদের জন্য কিছু গুরুত্বপূর্ণ পরামর্শ – ডাঃ মোঃ শাহিনুর ইসলাম

খামার ব্যবস্থাপনা ডেইরি ফার্মিং প্রাণিসম্পদ সম্পাদকীয়

নিজের অভিজ্ঞতার আলোকে ডেইরী খামারীদের জন্য কিছু গুরুত্বপূর্ণ পরামর্শঃ

১. নতুন গরু বাসায় এনে পর্যাপ্ত খাবার দেয়া থেকে বিরত থাকুন, এতে অনভ্যস্থ খাবার খেয়ে গরুর পেট ফাঁপতে পারে, ধিরে ধিরে খাদ্যাভ্যাস গড়ে তুলুন।

২. গাভীকে ভাত খাওয়াবেন না, এতে গাভীর প্রজনন ক্ষমতা কমে যায়।

৩. কোন ভাবেই বাচ্চা জন্মের ৪৮ ঘন্টার মধ্যে প্লাসেন্টা (গর্ভফুল) হাত দিয়ে টেনে বের করা যাবে না এবং প্লাসেন্টা না হলে সে গাভীকে অবস্যই টিটেনাস এর টিকা দিন।

৪. দানাদার খাবার মানেই খৈল/ভুসি/পালিস নয়, নির্ধারিত অনুপাতে খাবারের বিভিন্ন উপাদানের মিশ্রণ করে সুষম খাবার বানান এবং প্রথম ৩ লিটার দুধের জন্য ৩ কেজি ও পরবর্তী প্রতি ৩ লিটার দুদের জন্য ১ কেজি হারে সুষম দানাদার খাবার দিন।

৫. গাভীর ঘরের উচ্চতার সাথে গাভীর স্বস্তি, সুস্থ্যতা ও উৎপাদন ক্ষমতার সম্পর্ক আছে তাই গোয়াল ঘরের ছাদ উচু রাখুন (১২-১৫ ফুট)।

৬. ডেইরি খামার প্লান মানে শুধু গাভী ক্রয় ও বাসস্থান করা নয় এর সাথে বায়োসিকিউরিটি, বৈজ্ঞানিক ব্রিডিং পলিসি, খাদ্য ব্যাবস্থাপনা, দক্ষ কর্মচারী সংস্থান, মার্কেটিং, বিবেচ্য ঝুকি ও তার সমাধানে করনীয় সবকিছু সহ আরো অনেক বিষয় বিবেচনা করতে হয়।

৭. গাভী ডাকে আসার দুই থেকে তিন দিন পর যোনীপথে টাটকা রক্ত আসা মানেই আপনার গাভী অসুস্থ নয়। এই রক্ত আসাটা স্বাভাবিক এবং এর জন্য কোন চিকিৎসার প্রয়োজন নেই।একে মেটেস্ট্রাস ব্লিডিং বলে এবং এটি একটি স্বাভাবিক শারীরিক প্রক্রিয়া।

৮.সংকর জাতের বাছুর জন্মের পর তার শ্বাসকষ্ট হয়, এসময় উদ্বিগ্ন না হয়ে পর্যাপ্ত বাতাসের ব্যাবস্থা করুন, বাছুরের নাভির সুস্থ্যতা, তার সাদা উদরাময় হয় কিনা এবং বাছুর নিয়মিত দুধখায় কিনা খেয়াল রাখুন।

৯. গাভীকে প্রতি তিন মাস পরপর ক্রিমির ট্যাবলেট/ইনজেকশন দিন এবং প্রতিবারেই ১৪ দিন পর অবশ্যই বোস্টার ডোজ দিন।

১০. গাভীর ক্ষেত্রে ক্ষুরা রোগের ভ্যাকসিন সময়মত না দেয়া অপরিসীম ঝুকির সামিল।তাই রুটিন মাফিক ভ্যাকসিন দিন।

১১. গাভীর ওলানফোলা একটি অত্যন্ত জটিলরোগ এ রোগে গ্রাম্য ডাক্তারের চিকিৎসা না নিয়ে অবস্যই একজন রেজিস্টার্ড ভেট এর সাথে যোগাযোগ করুন।

১২. ইনব্রিডিং একটি ধ্ধংসাত্বক সমস্যা এ ব্যাপারে সতর্ক হোন।

ডাঃ মোঃ শাহিনুর ইসলাম

থানা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা (মেট্রো)

লালবাগ, ঢাকা

Tagged

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *