ল্যাবে ফিড ও ফিডের কাঁচামালের ক্রুড প্রোটিন টেস্ট করার পদ্ধতি

ভেট ল্যাব

আজ আমরা ভেটেরিনারি ল্যাবে কিভাবে ফিডের এবং র’ ম্যাটেরিয়েলের ক্রুড প্রোটিন কিভাবে টেস্ট করতে হয় সেই পদ্ধতি টা বিস্তারিত জানাব। চলুন শুরু করা যাক।

আমরা টেস্ট টি জেলডাল মেথডে করব। এবং এটা AOAC (American Official Analitical Chemist) মেথডে করবঃ

ল্যাব টেস্টক্রুড প্রোটিন

  • ১। প্রথমে যে স্যাম্পল টেস্ট করব তা ভালভাবে  ব্লেন্ডার মেশিনে গ্রাইন্ডিং করে ০.৫ গ্রামের মত স্যাম্পল এনালাইজিক্যাল ব্যালেন্স দ্বারা পরিমাপ করে একটি জেলডাল ফ্লাস্কে নিতে হবে।
  • ২। এর সাথে ৬ গ্রাম ইন্ডিকেটর/ক্যাটালিস্ট ( ১ গ্রাম কপার সালফেট + ৫ গ্রাম পটাশিয়াম সালফেট ) নিতে হবে। এগুলো একটি গোলতলি ফ্ল্যাক্সে নিয়ে ১৫ মিলি সালফিউরিক এসিড মিশিয়ে ২ – ২.৫ ঘন্টা পর্যন্ত ডাইজেস্ট রুম হিটারে ডাইজেস্ট করতে হবে। এসময় দ্রবণের রঙ সবুজ হয়ে যাবে।
  • ৩। তারপর ৩০ মিনিট ঠান্ডা করতে হবে। এরপরে ডাইজেস্টকৃত স্যাম্পলসহ গোলতলি ফ্ল্যাক্সটিতে ১০০ মিলি ডিস্টিল ওয়াটার মিশাতে হবে এবং মিশ্রণ টি আবার গরম হবে। এবং এটা আবারো ৩০ মিনিট রেখে দিতে হবে ঠান্ডা হওয়ার জন্য।
  • ঠান্ডা হলে ৭৫ মিলি সোডিয়াম হাইড্রোক্সাইড দ্রবণ দিয়ে ভালভাবে মিশিয়ে ডিস্টিলেশন পয়েন্টের হিটারে সেট করতে হবে।  
  • ৪। ডিস্টিলেশন পয়েন্টের অপর প্রান্তে একটি কনিক্যাল ফ্ল্যাক্সে ২৫ মিলি বোরিক এসিড দ্রবণ নিয়ে সেট করে মুখ বন্ধ করে দিতে হবে। এবং এখানে ২ – ২.৫ ঘন্টা হিট দিতে হবে।
  • ৫। কনিক্যাল ফ্লাস্কের দ্রবণের পরিমাণ ১০০ – ১৫০ মিলির কাছাকাছি এলে মেশিন বন্ধ করতে হবে। এসময় কনিক্যাল ফ্লাস্কের দ্রবণের রঙ গোলাপি থেকে সবুজ হবে।
  • ৬। ডিস্টিলেশন হওয়ার পর ১০ মিনিট ঠান্ডা করতে হবে।
  • ৭। তারপর কনিক্যাল ফ্ল্যাক্সে ০১-০২ ফোঁটা ইন্ডিকেটর (মিথাইল) দিয়ে ব্যুরেটে হাইড্রোক্লোরিক এসিড দ্বারা টাইট্রেশন করতে হবে।
  • এরপর টাইট্রেশঙ্করে প্রাপ্ত ব্যুরেট রিডিং এবং আগে থেকে তৈরি করা হাইড্রোক্লোড়ীক এসিডের স্ট্যান্ডার্ড মান নিম্নের সূত্রে বসিয়ে ক্রুড প্রোটিন বের করা হয়।

ক্যালকুলেশনঃ ক্রুড প্রোটিন = (ব্যুরেট রিডিং X 1.4 X HCl Standard X 6.25) / স্যাম্পল ওয়েট

Tagged

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *