শামুক চাষ হতে পারে হাঁসের খামারিদের জন্য সময়োপযোগী সিদ্ধান্ত

হাঁস পালন হাঁসের ফিড ফর্মুলেশন

হাঁসের খামারিদেরকে আমি সব সময় বলি শামুকের চাষ করতে এবং তাদের কাছে জানতে চাই, পুকুর আছে কিনা অথবা ডোবা নালা বা হাঁস চড়ার জন্য জলাভূমি আছে কিনা। প্রাকৃতিক ভাবে যদি হাঁসের খাদ্য সরবরাহ করা না যায় তবে খামারে লাভের অংশ টা কম হয়।
যদি আপনার ডোবা নালা পুকুর বা পরিত্যক্ত জলাভূমি থাকে তবে আপনি শামুক চাষ করতে পারেন ।মাছের বা হাঁসের খামার থাকুক বা না থাকুক এই শামুক বিক্রি করেও আপনি লাভবান হতে পারেন।

তাহলে আমরা জেনে নেই আপনি কিভাবে অতি সহজে শামুকের চাষ করবেন।

শামুক চাষ কৌশল:
পুকুরে প্রতি শতাংশ হিসেবে এক কেজি গোবর, এক কেজি খৈল ও ২৫০ গ্রাম ইউরিয়া পানিতে ভালোভাবে মেশাতে হবে। এ মিশ্রণ সমান চার ভাগে ভাগ করে তিন দিন অন্তর পানিতে ছিটিয়ে দিতে হবে। এতে পুকুরের পানির রং যখন গাঢ় সবুজ হবে, তখন বুঝতে হবে পুকুরটি শামুক চাষের উপযোগী হয়েছে। এরপর খালবিল বা পুকুর থেকে শামুক সংগ্রহ করে(অথবা শামুক ক্রয় করে)প্রতি শতাংশ হিসেবে ২৫০ গ্রাম শামুক পুকুরের চারদিকে ছিটিয়ে দিতে হবে। পরে ১০ থেকে ১৫ দিনের মধ্যে শামুক ব্যাপকভাবে বংশবিস্তার করবে। এরপর ৩৫ থেকে ৪০ দিনের মধ্যে পূর্ণাঙ্গ শামুক পাওয়া যাবে। অর্থাৎ ১০০ শতাংশ পুকুর থেকে ৪০-৪৫ দিনের মধ্যে প্রায় ১৭০০ কেজি ছোট শামুক উৎপাদন সম্ভব।

শামুক এর চাষ কেন করবেন?

✓শামুকে উচ্চমাত্রায় প্রোটিন, গুরুত্বপূর্ণ ভিটামিন, খনিজ পদার্থ এবং ওমেগা-৩ এবং ওমেগা-৬ ফ্যাটি এসিড রয়েছে। যার ফলে খাবার খরচ কমে যায়। হাঁসের ডিম এবং মাংসের উৎপাদন বৃদ্ধি পায়।
✓শামুক পুকুরের দূষণ রোধ করে, পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষা করে ।
✓শামুকের চাষ করে আপনি হাঁসের খামার অথবা মাছের খামারিদের কাছে বিক্রি ও করতে পারেন।

ডা মোঃ শাহিন মিয়া
বিসিএস প্রাণিসম্পদ
ভেটেরিনারি সার্জন।

Tagged

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *