দ্রুত গরু মোটাতাজাকরার সহজ উপায়

শুধু মাংস উৎপাদন করলেই হবে না; মাংসের কোয়ালিটির উপরে নজর দিতে হবে

খামার ব্যবস্থাপনা গরু পালন গরু মোটাতাজাকরণ ডেইরি ফার্মিং প্রাণিসম্পদ

মাংস উৎপাদন শুধু সাধারণ ভাবেই করলে চলবে না, সময় এসেছে এটাকে শিল্পের পর্যায়ে নিয়ে যাওয়ার

আমাদের খামারীদের মধ্যে যারা গরু মোটাতাজা করণের সাথে জড়িত তাদের লক্ষ্য থাকে শুধুমাত্র শুকনো গরুকে ভালোভাবে খাইয়ে দাইয়ে মোটাতাজা করে সেগুলির গায়ে মাংস বাড়ানো এবং বিক্রি করে দেয়া। অধিকাংশ খামারীই উৎপাদিত মাংসের মান কেমন হওয়া উচিৎ তার তোয়াক্কা করেন না। কিন্তু কসাইদের কাছে কম চর্বিযুক্ত মাংসল গরুর চাহিদা সবচাইতে বেশী এবং তারা এই ধরনের মাংসের বৈশিষ্ট্য সম্পন্ন গরুর দাম ও ভালো দেয়। রীতিমতো লাইন লাগিয়ে রাখে ঐ সমস্ত খামারে যারা এই ধরনের মাংসের বৈশিষ্ট্য সম্পন্ন গরু তৈরী করেন।

আমাদের দেশে যদিও কিছু কিছু বিশেষ জায়গা ছাড়া মাংসের গ্রেডিং এর দিকে তেমন দৃষ্টিপাত হয় না, তারপরেও কসাইদের কাছে মাংসের মানের ব্যাপারে অলিখিত কিছু বিবেচ্য বিষয় আছে। যেমন, কম চর্বিযুক্ত কচি ষাঁড়ের মাংস! স্টেইকের মাংস কেমন হয় এটা এখনো অনেক খামারীরা জানেই না! কিন্তু, তাদের এটা জানা উচিৎ। কারণ এই ধরনের মাংসের দাম অনেক বেশী থাকে শ্রেণী বিভক্ত করে বিক্রি করলে!

আবার স্টেইকের মাংসের ক্ষেত্রে মার্ব্লিং করা মাংসের অগ্রাধিকার সবচাইতে বেশী যেটা বাংলাদেশে উৎপাদিত গরুর মাংসের মধ্যে নেই বললেই চলে! আসলে মিট মার্ব্লিং কি এটা আমরা এখনো ভালো করে জানিই না! মার্ব্লিং গুণ সম্পন্ন মাংসের পরতে পরতে থাকবে সাদা বা হলুদাভ চর্বির লেয়ার! এই ধরণের গুণ সম্পন্ন মাংসের বিশেষ বৈশিষ্ট্য হলো এর অনবদ্য স্বাদ,গন্ধ এবং রসালো বা জুইসি একটা ভাব! তবে মার্বিং গুণ সম্পন্ন মাংস ওভার কুক বা বেশী সিদ্ধ করলে সেটা শক্ত হয়ে যায় যে কারণে সেটা স্বাদ এবং রসালো ভাবটা চলে যেতে পারে! এটা আসলে বিফ স্টেইকের জন্য সবচাইতে উপযোগী এবং এটা বাজারে চড়া মূল্যে বিক্রি হয়!

আমি বলছি না সবাই মিট মার্ব্লিংয়ে নামুন, যাদের সুযোগ আছে তারাই শুধু এটা প্রাকটিস করতে পারেন তাদের গরুতে! আসলে এভাবেই মাংস উৎপাদনের বিভিন্ন ধাপ তৈরী করে মাংসের ভালো বাজার মূল্য পাওয়া যেতে পারে। আমি কিছুটা পরীক্ষা নিরিক্ষা শুরু করেছি, সামনে আমার খামারের পরীক্ষার আওতাভুক্ত কোনো গরু জবাই করা হলে হয়তো আপনাদের সাথে রেজাল্ট শেয়ার করবো। আর যদি সফলতা আসে তাহলে অবশ্যই “মিট মার্ব্লিং ইন বাংলাদেশী স্টাইল” এর পুরো প্রক্রিয়া আপনাদের পোস্ট দিয়ে জানিয়ে দিবো! কয়েকটা ক্লু তারপরেও দিয়ে রাখি আপনাদের।

★ মিট মার্ব্লিং করার জন্য উপযুক্ত গরু হচ্ছে জার্সি! USDA গ্রেডিং এ জার্সির স্কোর হচ্ছে 600, এরপর আসে এংগাস,ডেভন, শর্টহর্ণ, আয়ারশ্যায়ার ইত্যাদির এবং এদের স্কোর হচ্ছে 500!

★ মার্ব্লিং প্রধান শর্ত হচ্ছে গরুর রুমেনে প্রচুর কর্ণ, হাই-প্রোটিন এবং ফাইবার থাকতে হবে এবং সেগুলি গরুকে হজম করাতে হবে।

★ গরুকে কোনোভাবেই পরিশ্রম করানো যাবে না, অর্থাৎ তার ওয়ার্কিং মাসল গুলি যাতে বেশী একটিভ না হয়!

উপরের ক্লু গুলি মাথায় রেখে গরুকে ফ্যাটেনিং করালে হয়তো আপনিও আপনার গরুর মাংসে মার্ব্লিং বৈশিষ্ট্য দেখতে পাবেন!যাক, অনেক আলোচনা করে ফেললাম।ভবিষ্যতে, আল্লাহ চাইলে এই বিষয়ে একটা পূর্ণাঙ্গ পোস্ট হয়তো আপনাদের জন্য ডেভেলপ করতে পারবো। ইনশাআল্লাহ।

লেখকঃ মুক্তি মাহমুদ

Tagged

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *