এক হাজার কোয়েল পালনে মাসিক আয়ের হিসাব

এক হাজার কোয়েল পালনে মাসিক আয় প্রথমে আমরা হিসাবের সুবিধার্থে কিছু বিষয় ধরে নিব ১) ডিম দেয়ার হার ৭০-৯০% (গড়ে ৮০% ধরে নিলাম) ২) ডিমের দাম ১.৬ – ২.০ টাকা (গড়ে ১.৮ টাকা) ৩) লেয়ার খাবারের দাম(৫০কেজি) প্রতি বস্তা ১৮০০ টাকা   অর্থ্যাত প্রতি কেজির দাম=৩৬ টাকা ৪) প্রতিটি কোয়েল খাবার খাবে ২৫ গ্রাম। ১০০০ কোয়েলের […]

Continue Reading

এক হাজার কোয়েল পালনে প্রয়োজনীয় মূলধন

কোয়েল পালনের সাম্ভাব্য পুঁজি (১০০০ পাখির) বিষয় ধরণ দর   টাকা ১) পাখি মহিলা পাখি (৩০ দিন বয়সী) গড়ে ৩০ টাকা প্রতি পিস ১০০০x৩০ ৩০,০০০/= 2)খাদ্য (ডিম পাড়ার আগ পর্যন্ত) দৈনিক গড়ে ২০ গ্রাম করে ৩০ দিন। ১০০০ পাখির জন্য ১২ বস্তা (৫০ কেজির বস্তা) প্রতি বস্তা ২২০০ টাকা (ব্রয়লার গ্রোয়ার) ১২x২২০০ ২৬,৪০০/= 3)খাঁচা লোহার […]

Continue Reading

বিভিন্ন বয়সী কোয়েল পাখির দাম

প্রথমেই বলে নিতে চাই-কোয়েলের বাচ্চার দাম স্থান,বয়স,সময়,কোয়ালিটি,চাহিদা ও খামারের মালিকের ব্যক্তিগত ইচ্ছার উপরে নির্ভর করে। যেমন খুলনায় বা বগুড়ায় বাচ্চার দাম আর চট্টগ্রামে বাচ্চার দাম একই না ও হতে পারে।আবার বিভিন্ন বয়সী ও ভাল-মন্দ কোয়ালিটির উপরের বাচ্চার দাম কম বেশি হতে পারে। এছাড়া আমাদের দেশে যে রকম ব্রয়লার বা লেয়ারের বাচ্চার দাম একটা মহল ঠিক […]

Continue Reading

কোয়েলের ডিম থেকে বাচ্চা ফুটানোর পদ্ধতি

সাধারনত বানিজ্যিক কোয়েল নিজেরা ডিমে তা দিয়ে বাচ্চা ফুটায় না।কৃত্রিম পদ্ধতিতে ইনকিউবেটর মেশিনের সাহায্যে কোয়েলের ডিম থেকে বাচ্চা ফুটাতে হয়।ইনকিউবেটর মেশিনের সাহায্যে কোয়েলের ডিম থেকে বাচ্চা ফুটের বের হতে প্রায় ১৭ দিন সময় লাগে। ইনকিউবেটর মেশিন দিয়ে বাচ্চা ফুটাতে হলে ৪ টি বিষয় কঠোরভাবে নিয়ন্ত্রণ করতে হয়- তাপমাত্রা (৩৭.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস) আদ্রতা (৬৫-৭৫% আপেক্ষিক আর্দ্রতা) […]

Continue Reading

কোয়েল খামারের আলোক ব্যবস্থাপনা

কোয়েলীর ডিম উৎপাদন আলোর উপর যথেষ্ট নির্ভরশীল৷ ৬ষ্ঠ সপ্তাহে ১৩ ঘন্টা আলোর ব্যবস্থা করতে হবে (দিনের আলোসহ) ৷ ৭ম,৮ম ও ৯ম সপ্তাহে প্রতি সপ্তাহে একঘন্টা হিসেবে বাড়িয়ে তা যথাক্রমে ১৪, ১৫ ও ১৬ ঘন্টায় বৃদ্ধি করতে হবে৷পর্যাপ্ত সংখ্যায় ডিম পেতে হলে কোয়েলীর ঘরে ৯ম সপ্তাহ থেকে দৈনিক ১৬ ঘন্টা আলোর ব্যবস্থা (দিনের আলোসহ) থাকতে হবে৷ […]

Continue Reading

পুরুষ ও মহিলা কোয়েল চেনার উপায়

পুরুষ ও মহিলা কোয়েল চেনার বেশ কিছু পদ্ধতি রয়েছে- বুকের পালক দেখে ডাক শুনে পায়ুপথ দেখে এছাড়া বাচ্চা কোয়েলের ভেণ্ট পরীক্ষা করেও লিঙ্গ বাছাই করা যায় তবে সেক্ষেত্রে অভিজ্ঞ হতে হয়। ১)বুকের পালক দেখেঃ পুরুষ কোয়েলঃ সাধারনত পুরুষ কোয়েলের বুকের দিকের পালক গুলা গাঢ় বাদামি কালারের হয়ে থাকে। পুরুষ পাখি মহিলা কোয়েলঃ মহিলা কোয়েলের বুকের […]

Continue Reading

একটি আদর্শ কোয়েল খামারের বৈশিষ্ট্য

কোয়েল খামার করার জন্য কিছু বিষয় অবশ্যই খেয়াল রাখতে হবে- খামার টি অবশ্যই পূর্ব-পশ্চিম বরাবর লম্বা হতে হবে। খামারটি প্রস্থে ১৫ ফুটের বেশি হওয়া উচিত নয়।তবে লম্বায় পূর্ব-পশ্চিম বরাবর যত খুশি বড় করা যেতে পারে।কিন্তু খেয়াল রাখতে হবে যে,সর্বোচ্চ ২০ ফুট পরে পরে বেড়া দিয়ে খোপ খোপ করে দুই বা ততোধিক রুমে ভাগ করে নিতে […]

Continue Reading

ফার্মের বায়োসিকিউরিটি বা জৈবনিরাপত্তা কি,কেন,কিভাবে?

কোয়েল খামারের বায়োসিকিউরিটি বা জৈবনিরাপত্তা যেকোনো খামারের সাফল্যের পিছনে বায়োসিকিউরিটি বা জৈব-নিরাপত্তা বিশেষ ভূমিকা রাখে।কারন জৈব নিরাপত্তা মেনে চললে খামারে রোগ-বালাই হওয়ার প্রবণতা কম থাকে।তাই সঠিকভাবে খামারের বায়োসিকিউরিটি বজায় রাখতে পারলে খামার করে সফল হওয়া খুবই সম্ভব। খামার প্রস্তুত করা থেকে শুরু করে বাচ্চা সংগ্রহ,বাচ্চা লালন-পালন এবং উতপাদন ও বিক্রয় পর্যন্ত সকল ক্ষেত্রে বায়োসিকিউরিটি মেনে […]

Continue Reading