এই শীতে খামারিদের চরম বন্ধু সিরামিক এবং ইনফ্রারেড হিট বাল্ব

এই হাড়কাপা শীতে আপনার খামারকে চাঙ্গা রাখতে ব্যবহার করুন সিরামিক হিট বাল্ব এবং ইনফ্রারেড হিট বাল্ব পোল্ট্রি ফার্মিং-এ লাইটিং এবং তাপমাত্রার একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। আলোর সঠিক ব্যবস্থাপনার ফলে একদিকে যেমন অনেক সমস্যা থেকে নিরাপদ থাকা যায় অন্যদিকে খামারীর কাংখিত উৎপাদন নিশ্চিত হয়। আর এসব বিবেচনায় রেখে “Vet Shop Bangladesh” নিয়ে এলো সিরামিক এবং ইনফ্রারেড হিট […]

Continue Reading

সামনে আসছে শীতের সিজনঃমুরগির বার্ড ফ্লু প্রতিরোধে করণীয় কিছু পরামর্শ

বার্ড ফ্লু (এভিয়ান ইনফ্লুয়েঞ্জা) একটি ভাইরাসজনিত ছোঁয়াচে রোগ। এর জীবাণু বার্ড ফ্লু আক্রান্ত হাঁস-মুরগি বা অন্যান্য পাখির মল, রক্ত ও শ্বাসনালীতে বাস করে। মানুষ ঘটনাচক্রে এ রোগে আক্রান্ত হয়। প্রাপ্তবয়স্কদের ক্ষেত্রে বেশিরভাগ সংক্রমণই ঘটেছে তাদের যারা আক্রান্ত পাখি জবাই বা পালক ছাড়ানোর জন্য নাড়াচাড়া করেছে। আবার যেসব শিশু আক্রান্ত পাখি বা মৃত হাঁস-মুরগি নিয়ে খেলা […]

Continue Reading

ডিম উৎপাদনের জন্য সোনালি মুরগি পালন

ডিম উৎপাদনে সোনালি মুরগীঃ বানিজ্যিকভাবে ডিম উৎপাদনের জন্য সোনালি মুরগি পালন করা অনেকগুলো ফ্যাক্টরের উপর নির্ভর করে। বানিজ্যিকভাবে ডিম উৎপাদনের জন্য সোনালি মুরগি পালন করতে গেলে সবচেয়ে বড় যে সমস্যাটা দেখা দেয় তা হলো “ইনব্রিডিং”। এই সমস্যার কারনে মুরগির ফার্টিলিটি হ্রাস পায়। ফলে ডিম উৎপাদনের হার কমে যায়। বানিজ্যিক ভাবে ডিম উৎপাদনের জন্য সোনালি মুরগি […]

Continue Reading

সোনালি মুরগির খাদ্য ব্যবস্থাপনা ও FCR নিয়ে কিছু কথা

আমরা অনেকেই মনে করি সোনালি মুরগিকেও ব্রয়লার মুরগির মত সব সময় খাবার দেয়া দরকার। কিন্তু এটা একটা ভুল ধারণা। মনে রাখা দরকার ব্রয়লার মুরগির খাদ্য রূপান্তরের হার এবং সোনালি মুরগির খাদ্য রূপান্তরের হার এক নয়। ব্রয়লার মুরগি যত খাবে তত ওজন হবে, অন্যদিকে সোনালি মুরগিতে খাদ্যের অনেকটাই কাজে আসবে না। এজন্যই সোনালি মুরগিকে Add libidum(যত […]

Continue Reading

সোনালি মুরগি (কক মুরগি) পালন ব্যবস্থাপনা

পালন তথ্যঃ সোনালি ( কক ) জাতের মুরগির ক্ষেত্রে পালন কালীন সময় ৫৫-৬০ দিন। ৫৫-৬০ দিনে একটি মুরগি গড়ে ১.৫ কেজি খাদ্য গ্রহন করে। ৫৫-৬০ দিনে একটি মুরগির গড় ওজন ৭০০ গ্রাম হয়ে থাকে। নিয়মিত টীকা প্রদান করলে এবং খামার পরিচ্ছন্ন রাখলে রোগ-বালাই আনুপাতিক হারে কম দেখা যায়। সোনালি (কক) জাতের মুরগির ক্ষেত্রে এখনো কোন […]

Continue Reading

ব্রয়লার/লেয়ার/সোনালি/কক মুরগি ভ্যাকসিন তালিকা একসাথে

লেয়ার মুরগির জন্য – টিকা/কৃমিনাশক প্রদান কর্মসূচি বয়স রোগের নাম ভ্যাকসিনের নাম টিকা প্রদানের পদ্ধতি ১ দিন মারেক্স রোগ মারেক্স ভ্যাকসিন ০.২ মিলি চামড়ার নীচে ইজেকশন ৫ দিন রানীক্ষেত রোগ বি, সি, আর, ডি, ভি এক চোখে ফোঁটা (প্যারেন্ট মুরগির টিকা প্রদান করা থাকলে ৭ থেকে ১০ দিন বয়সে) ৭ দিন ইনফেকসাস ব্রংকাইটিস আই, বি, […]

Continue Reading

মুরগির গাম্বোরো রোগের সরকারি ভ্যাকসিন গুলানোর নিয়ম,ডোজ,মাত্রা,প্রয়োগ পদ্ধতি ও দাম সহ বিস্তারিত

গামবোরো রোগ (Infectious Bursal Disease) মোরগ-মুরগির ভাইরাস জনিত একটি মারাত্মক রোগ। সাধারণত: ৩-৮ সপ্তাহ বয়সী মোরগ-মুরগি এ রোগে আক্রান্ত হয়ে থাকে। এ রোগে মোরগ-মুরগির বার্সা আক্রান্ত হয় বলে এরূপ নামকরণ করা হয়েছে। আক্রান্ত মোরগ-মুরগির কুঁচকানো পালক, অবসন্নতা, ময়লাযুক্ত পায়ুস্থান, উচ্চ তাপমাত্রা, কাঁপুনি ও পানির মতো ডায়রিয়া এ রোগের প্রধান বৈশিষ্ট্য। মাষ্টার সীডঃ বি এ ইউ- […]

Continue Reading

মুরগির সালমোনেলা বা ফাউল টাইফয়েড রোগের সরকারি ভ্যাকসিন দেয়ার নিয়ম,ডোজ,মাত্রা ও দাম সহ বিস্তারিত

সালমোনেলোসিস/ফাউল টাইফয়েড গৃহ-পালিত মোরগ-মুরগির একটি ব্যাকটেরিয়া জনিত রোগ। এ রোগ তীব্র ও দীর্ঘ মেয়াদী (Chronic) প্রকৃতির হয়ে থাকে। তীব্র প্রকৃতির রাগে মোরগ-মুরগির উচ্চ তাপমাত্রা ও হঠাৎ মৃত্যু হয়। দীর্ঘ মেয়াদী (Chronic) মোরগ-মুরগির খাদ্য গ্রহণে অনিহা, ঝুটি বিবর্ণ হওয়াসহ সবুজ বা হলুদ বর্ণের ডায়রিয়া দেখা দেয় যা মলদ্বারের আশপাশের পালকে লেগে থাকে। এ রোগে আক্রান্ত পাখির […]

Continue Reading

হাঁস-মুরগির কলেরার সরকারি ভ্যাকসিন দেয়ার নিয়ম,ডোজ,দেয়ার পদ্ধতি,সংরক্ষণ ও দাম সহ বিস্তারিত

হাঁস-মুরগির কলেরা গৃহপালিত ও বন্যপাখির একটি মারাত্মক সেপ্টিসেমিক রোগ। পাস্ত্তরেলা মাল্টোসিডা টাইপ-এ (Pasteurella multocida type-A) নামক ব্যাকটেরিয়া দ্বারা এ রোগ সৃষ্টি হয়ে থাকে। এটি মূলতঃ আক্রান্ত পাখি থেকে সুস্থ পাখিতে অথবা আক্রান্ত বা বাহক পাখির মল ও অন্যান্য নিঃসরণ দ্বারা পানি ও খাদ্য দূষণের মাধ্যমে অন্য সুস্থ পাখিতে ছড়ায়। উচ্চ আক্রান্তের হার ও অধিক মৃত্যুর […]

Continue Reading

মুরগির পক্সের সরকারি ভ্যাকসিন গুলানোর নিয়ম,মাত্র,ডোজ,সংরক্ষণ ও দাম সহ বিস্তারিত

ফাউল পক্স মোরগ-মুরগির ভাইরাসজনিত একটি রোগ। আক্রান্ত মোরগ-মুরগির ঝুটি, কানের লতি, পা, পায়ের আঙ্গুল এবং পায়ুর চার পার্শ্বে বসন্তের ফুসকুড়ি দেখা যায়। চোখের চারপাশে এই ক্ষত সৃষ্টির ফলে চোখ বন্ধ হওয়ার উপক্রম হয়। এই রোগে বাচ্চা মোরগ-মুরগির বয়স্ক মোরগ-মুরগির অপেক্ষা অধিক সংবেদনশীল। মাষ্টার সীডঃ বোডেট (Buddett) ষ্ট্রেইন। অরিজিনঃ মালয়েশিয়া। ব্যবহার বিধিঃ প্রথমে টিকার ভায়ালে ৩ […]

Continue Reading